রিমোট সাপোর্ট টুল হিসেবে TeamViewer এর জনপ্রিয়তা বরাবরই ঈর্ষণীয়। AnyDesk, TeamViewer এ টুলগুলোর ব্যবহার আগে থাকলেও কোভিড-১৯ এর কারণে এদের ব্যবহার বেড়েছে বহুগুণ।
মনে করুন, আপনি ঘরে বসে আছেন। আপনার পিসিতে হরেক রকমের সমস্যার উদ্রেক হয়েছে। সাধারণভাবে আপনি কী করতেন?
শুরুতে নিজে নিজে ঠিক করার ট্রাই করতেন। যদি কম্পিউটার বিষয়ে একটু কম ধারণা থাকে, তাহলে অবশ্যই কোনো কম্পিউটার রিপেয়ার শপে নিয়ে যেতেন। অথবা কোনো আইটি সাপোর্টের কোনো মানুষের কাছে।
কিন্তু কোভিডের কারণে যদি রিপেয়ার শপ বন্ধ থাকে? তবে?
আপনি কি বসে থাকবেন? বসে থাকা উচিত?
আপনার পিসির সমস্যা যদি সফটওয়্যারজনিত হয়, সেক্ষেত্রে আপনি ঘরে বসেই একজন আইটি সাপোর্ট পার্সনকে আপনার পিসির অ্যাক্সেস দিতে পারেন। সে আপনার সামনেই আপনার পিসি চালাবে। আপনি আপনার স্ক্রিনে দেখবেন সে কী করছে। ভাগ্য ভালো হলে বুঝেও যেতে পারেন যে সমস্যাটা কোথায়, আর সাপোর্ট পার্সন কীভাবে সমস্যাটার সমাধান করলো।
যে ধরনের সফটওয়্যারের মাধ্যমে সাপোর্ট পার্সন আপনার পিসি কন্ট্রোল করবেন, সেগুলোকে বলা হয় Remote Access Trojan or Remote Administration Tool বা সংক্ষেপে RAT. আপনি যদি শব্দটি আগে শুনে থাকেন, তবে মোটামুটি সিউর যে আপনি জানেন যে RAT শব্দটি ভাইরাসের সাথে সংযুক্ত। RAT দিয়ে মূলত ভাইরাসকেই বুঝায়। এতটুকু পড়ে আমি নিশ্চিত আপনি ভ্রু কুঁচকে ফেলেছেন। আমি আমার পিসিতে ভাইরাস ইনস্টল করবো?
একটু অপেক্ষা করুন। আগে পুরো লেখাটি পড়ে নিন। সব ক্লিয়ার হয়ে যাবে আপনার কাছে। RAT তখনই ভাইরাস যখন আপনার পারমিশন ছাড়া কেউ আপনার পিসির অ্যাক্সেস নেয়। হ্যাকাররা বিভিন্ন সফটওয়্যারের সাথে বান্ডেল হিসেবে জুড়ে দেয় এই RAT ধরনের সফটওয়্যার। একটা উদাহরণ দেই। উদাহরণ দিলে আপনারা ভালো বুঝবেন আশা করি।
ধরে নিচ্ছি আপনি খুবই গেম পছন্দ করেন। পিসি গেম কিনে খুব কম মানুষই খেলতে পারে। আমি বর্তমান বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে বলছি। যদিও বর্তমানে অবস্থার পরিবর্তন হচ্ছে। যাই হোক, ধরে নিচ্ছি আপনি ক্র্যাক গেম ইনস্টল করবেন। সেক্ষেত্রে অনেক সমস্যার সম্মুখীন আপনাকে হতে হবেই। আপনি নিজে যদি না পারেন, তাহলে সাধারণত কোনো বন্ধুর বাসায় চলে যান যে গেম ইনস্টল করে দিতে পারে। কিন্তু TeamViewer এর সাহায্যে আপনি চাইলে ঘরে বসেই বন্ধুকে পিসির অ্যাক্সেস দিতে পারেন। সে আপনার পিসিতে ঢুকে আপনার হয়ে গেমটা ইনস্টল করে দিতে পারবে খুব সহজেই।
একইভাবে যেকোনো সমস্যাই সলভ করা যাবে সেটা যদি সফটওয়্যারজনিত সমস্যা হয়।
মজার ব্যাপার হচ্ছে TeamViewer এ কলও করা যায়। ফাইলও পাঠানো যায়। জোস না?
AnyDesk এও সিমিলার ফিচার রয়েছে।
বর্তমানে TeamViewer বা AnyDesk এর অলটারনেটিভ স্বয়ং মাইক্রোসফটই বানিয়ে নিয়েছে। Windows 10 এর Latest Version গুলোতে Quick Assist নামের ফিচার অ্যাড করা হয়েছে যেটা দিয়ে একই কাজ করা যায়। তবে Quick Assist এ কল ও ফাইল পাঠানোর অপশন এ লেখাটি লেখা পর্যন্ত অ্যাড হয়নি। আশা করি মাইক্রোসফট সেটিও অ্যাড করবে। Quick Assist এ বাগ রয়েছে বেশ কিছু। যেহেতু নতুন বের হয়েছে, কাজেই হালকা-পাতলা বাঘ-ভাল্লুক থাকবেই। শীঘ্রই সেগুলো সলভ হয়ে যাবে আশা করা যায়। TeamViewer এর আরও অনেক ফিচার রয়েছে যেগুলো পেইড প্যাকেজের মধ্যে পড়ে। আমি ব্যক্তিগতভাবে সেগুলো ব্যবহার করিনি, তাই কোনো মন্তব্য করছি না।
শুরুতে যে RAT এর কথা বলছিলাম, সেগুলোর যেগুলোতে আপনার পারমিশন নেওয়া হয় না, সেগুলো হচ্ছে Trojan. হ্যাকাররা এ ধরনের টুল ব্যবহার করে সব হ্যাক করতে পারে সহজেই৷ আপনি যখন কাউকে বৈধভাবে অ্যাক্সেস দেন, সেটার নাম হচ্ছে Remote Administration Tool. সহজ কথায় বৈধ হলে Admin Tool, অবৈধ হলে Trojan.